বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:১৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কামতাল ডাক সমাজ কবরস্থান বাঘে মুসাফির মোহাম্মদিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসায় কবরবাসীদের জন্য দোয়া। হাজি সফিউল্লাহ এর পক্ষ থেকে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঈদ সামগ্রী বিতরন। সনমান্দীতে নামাজ পড়ে পুরস্কার পেলো অর্ধশতাধিক যুবক। সোনারগাঁওয়ে যানজট নিরসনে কাজ করছে পরিবেশ রক্ষা ও উন্নয়ন সোসাইটি সোনারগাঁ সিটি প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া আইন সহায়তা কেন্দ্র আসক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত সোনারগাঁয়ে ১৯ কোটি টাকার সড়ক উন্নয়ন কাজের কয়েকটি প্রকল্পের উদ্বোধন সোনারগাঁকে পরিচ্ছন্ন হিসেবে গড়ে তুলতে ৭ শতাধিক বিডি ক্লিন স্বেচ্ছাসেবীদের শপথ বন্দরে জনকল্যাণ সাংস্কৃতিক  সংঘের উদ্যোগে  ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত   উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল ওমর বাবুর নির্বাচনী উঠান বৈঠক দোয়া ও মাহফিল অনুষ্ঠিত

কাঁচপুরে আন্তজেলা বাস টার্মিনাল নির্মাণের উদ্বোধন করলেন: মেয়র তাপস

  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১০ আগস্ট, ২০২৩
  • ৬৭ বার পঠিত

নিউজ ডেস্কঃ-
নারায়ণগঞ্জের কাঁচপুরে ২৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ১২ বিঘা জমির উপর নির্মিত হচ্ছে ঢাকা নগর আন্তজেলা বাস টার্মিনাল। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নিজস্ব অর্থায়নে এই টার্মিনাল প্রাথমিকভাবে আগামী ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে বাস চলাচলের উপযোগী করে গড়ে তোলা হবে বলে জানান ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার (৯ আগস্ট) সকালে আন্তজেলা বাস টার্মিনালের উদ্বোধন করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ সমিতির সভাপতি এনায়েত উল্লাহ খান এবং সড়ক পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষের নির্বাহী পরিচালক সাবিহা পারভীন, দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুব আলম, কাঁচপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ ওমরসহ অনেকে।

মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, ১৯৮৪ সালে সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল নির্মাণের পর আর কেউ ঢাকায় বাস টামিনাল নির্মাণ করার উদ্যোগ গ্রহণ করেনি। যে কারণে ঢাকায় পরিবহন ব্যবস্থাপনার  শৃঙ্খলা নেই। নগর পরিবহন ব্যবস্থায় শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতেই ঢাকার বাইরে সড়ক ও জনপথ বিভাগের জায়গায় আধুনিক সুযোগ সুবিধা সম্পন্ন বাস টার্মিনাল নির্মাণ করা হচ্ছে।

মেয়র তাপস আরও বলেন, কাঁচপুর আন্তজেলা বাস টার্মিনাল থেকে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের ১৬ জেলার গণপরিবহন চলাচল করবে। এটি নির্মিত হলে ঢাকার সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল থেকে নগর পরিবহন সেবায় নিয়োজিত বাস শুধু চলাচল করবে। ঢাকার যাত্রীরা যাতে নিরাপদে কাঁচপুর বাস টার্মিনালে এসে দূরপাল্লার বাসে সহজে আসতে পারে সেজন্য নগর পরিবহনের বাস সায়েদাবাদ থেকে কাঁচপুর পর্যন্ত চলাচল করবে। এটি একটি যুগান্তকারী উদ্যোগ। কাঁচপুর বাস টার্মিনাল নির্মাণ কাজ শেষ হলে ঢাকার যানজট কবে আসবে এবং নগর পরিবহনে শৃঙ্খলা ফিরে আসবে।

ঢাকা দক্ষিণের মেয়র আর বলেন, রাজধানী ঢাকার চারপাশে আন্তজেলা বাস চলাচলের জন্য হেমায়েতপুর, কামরাঙ্গীরচরসহ বেশ কয়েকটি বাস টার্মিনাল নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি করপোরেশন। তারই প্রথম উদ্যোগ কাঁচপুরে বাস টার্মিনাল নির্মাণ কাজ। আগামী ছয় মাস অর্থাৎ ২০২৪ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে টার্মিনালের মাটি ভরাট, সীমানা প্রাচীর নির্মাণ, চালক ও হেলপার কর্মচারীদের জন্য ছাউনি নির্মাণ করাসহ বাস টার্মিনালে বাস রাখার উপযোগী করে তোলা হবে। সড়ক ও জনপথ বিভাগের ১২ বিঘা জমির উপর সিটি করপোরেশনের নিজস্ব অর্থায়নে ২৮ কোটি টাকা ব্যয় হবে।

ঢাকায় গণপরিবহনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে যে কোন উদ্যোগের পাশে থাকবেন বলে জানান সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি খন্দকার এনায়েত উল্লাহ।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের যে জায়গায় কাঁচপুর বাস টার্মিনাল নির্মিত হচ্ছে এখান থেকে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের ১৬ জেলার প্রায় ১১ হাজার যাত্রীবাহী বাস চলাচল করবে। এই বাসগুলো ঢাকার বাইরে চলে এলে ঢাকার যানজট অনেকাংশে কমে আসবে বলে জানান সড়ক পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষের নির্বাহী পরিচালক সাবিহা পারভীন।

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর